রবিবার , সেপ্টেম্বর ২৩ ২০১৮
Breaking News
Home / ইসলামিক / কাকরাইল মসজিদে তাবলিগ জামাতের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ:
for Call: 01741616874

কাকরাইল মসজিদে তাবলিগ জামাতের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ:

২৮ এপ্রিল,২০১৮

ঢাকা: রাজধানীর কাকরাইল মসজিদে তাবলিগ জামাতের দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় পুলিশ দুই পক্ষকে বের করে দিয়ে মসজিদ ফাঁকা করে দিয়েছে।

শনিবার সকালে কাকরাইলে তাবলীগ জামাতের সাদপন্থী ও হেফাজতপন্থীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এই ঘটনার পর মসজিদের সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) রমনা বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনার (এডিসি) এইচ এম আজিমুল হক সাংবাদিকদের বলেন, কাকরাইল মসজিদ থেকে দুই গ্রুপকেই বের করে দেওয়া হয়েছে। মাওলানা সাদ বিরোধী ও সাদপন্থীদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। আমরা তাদেরে উভয়পক্ষকে শান্ত থাকার অনুরোধ করছি।

তিনি আরো বলেন, শৃঙ্খলাবিরোধী কর্মকাণ্ড ও মসজিদের পরিবেশ রক্ষায় তাদের বের করে দেওয়া হয়েছে। দুই গ্রুপকে নিয়ে সমঝোতার জন্য বসবে পুলিশ।

জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার থেকে দুই গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা তৈরি হয়। শনিবার সকালে ফের কাকরাইল মসজিদের সামনে অবস্থান নেন হেফাজতপন্থীরা। এসময় সা’দপন্থীদের বিরুদ্ধে তারা স্লোগান দিতে থাকেন। সা’দপন্থীর অনুসারি জাকারিয়া নামে একজনকে মারধর করা হয়।

কাকরাইলের মুসল্লিরা জানান, সাদ-বিরোধীরা কয়েক দিন ধরে মারকাজ ও এর পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন মাদ্রাসা থেকে ছাত্রদের জড়ো করতে শুরু করেন। গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে তারা মারকাজ সংলগ্ন কমপ্লেক্সের তৃতীয় তলার দুটি কক্ষে মোবাইল ফোন ‘জ্যামার’ বসান। এতে পুরো মারকাজের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এই পরিস্থিতিতে সকালে দৈনন্দিন পরামর্শ সভা থেকে সাদের সিদ্ধান্ত আর না মানার ঘোষণা দেওয়া হয়।

দেশে তাবলিগ জামাতের কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ১১ জন শুরা সদস্য আছেন। এরমধ্যে কাকরাইল মসজিদের খতিব ও পার্শ্ববর্তী উলুম উদ দুনিয়া মাদ্রাসার মুহতামিম জুবায়ের আহমদের নেতৃত্বে পাঁচজন মাওলানা সাদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন।

অন্যদিকে রয়েছেন ওয়াসিফুল ইসলামের নেতৃত্বে বাকি ছয়জন। এই ১১ জনের যেকোনো বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেন ছয়জন, যাঁদের ফয়সাল (সিদ্ধান্তদাতা) বলা হয়। শুরা সদস্যের মধ্যে কারা ফয়সাল হবেন, তা এত দিন মাওলানা সাদ নির্ধারণ করে দিতেন। সম্প্রতি আরও দুজন শুরা সদস্যকে তিনি ফয়সাল হিসেবে নিয়োগ দেন। এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে অবস্থান নেন জুবায়ের আহমদের নেতৃত্বাধীন পাঁচ শুরা সদস্য।

গত বিশ্ব ইজতেমার আগে থেকেই বিভিন্ন বিষয়ে নিয়ে মতবিরোধ চলে আসছিল তাবলিগ-জামাতের দুই গ্রুপের মধ্যে। বিশ্ব ইজতেমার সময় তাবলিগ-জামাতের দিল্লির মারকাজের মুরব্বি মাওলানা সা’দকে ঘিরে দুই পক্ষের মধ্যে সংকট আরও ঘনিভূত হয়। সা’দের বক্তব্য নিয়ে দুই পক্ষ অন্তত চারবার সংঘর্ষে জড়িয়েছে। বিষয়টি নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল মন্ত্রণালয়ে কয়েকবার বৈঠকও করেছেন। এরপরও দুই পক্ষকে সমঝোতায় আনা সম্ভব হয়নি। এর আগেও তাবলিগ-জামাতের বিরোধ নিয়ে এই দুই পক্ষের মধ্যে মামলা-পাল্টা মামলা হয়েছে।

About HK Nasir

Director & Editor: Allbdnews24.com

Check Also

ফার্মের মুরগি মানবদেহে রোগ ছড়াচ্ছে

অলবিডিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডেস্ক:: বেঁচে থাকার তাগিদেই প্রতিদিনি আমরা খাবার খাই। কিন্তু এই খাবারই যে আবার …

রাজধানীতে বাস চাঁপায় ৩ শিক্ষার্থীর মর্মান্তিক মৃত্যু: অবরোধ-ভাঙচুর

ছাতক মিডিয়া সেন্টার ডেস্ক:: রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে বাস থামানোর চেষ্টাকালে একদল কলেজশিক্ষার্থীর ওপর যাত্রীবাহী বাস …

সিলেটে ইতিহাসের ধারাবাহিকতা

  পৌরসভা হিসেবে সিলেট শহরের যাত্রা ১৮৭৮ সালে। ২০০২ সালে সিটি করপোরেশনে উন্নিত হয় ১২৪ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Thanks For Visit Our Site